22 C
Dhaka,BD
February 9, 2023
Uttorbongo
জাতীয় বাংলাদেশ

আমরা এখনও শ্রীলঙ্কার মতো হইনি, তবে সাবধান: এম এম আকাশ

সরকারের ভুল নীতি ও দুর্নীতির কারণে দেশে জ্বালানি সংকট দেখা দিয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) অর্থনীতি বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. এম এম আকাশ।

বৃহস্পতিবার (২১ জুলাই) জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে তেল গ্যাস-খনিজ সম্পদ ও বিদ্যুৎ বন্দর রক্ষা জাতীয় কমিটির এক সমাবেশে এ মন্তব্য করেন তিনি।

অর্থনীতিবিদ এম এম আকাশ বলেন, সরকারের ভুল নীতি ও দুর্নীতির কারণে দেশে জ্বালানি সংকট এবং লোডশেডিং দেখা দিয়েছে। এর মধ্যে আবার আগামী চার মাসের মধ্যে শেষ হয়ে যাবে দেশের রিজার্ভ।

তিনি আরও বলেন, গ্যাসের ওপর স্বনির্ভরতার কথা আমরা আগে থেকেই বলে আসছিলাম। কিন্তু তা না করে আমদানি নীতি নেওয়া হলো। তখন আমরা বলছিলাম আমরা ফাঁদে পড়তে যাচ্ছি। এখন আমরা গ্যাসও আনতে পারছি না, বিদ্যুৎও পাচ্ছি না।

বিদ্যুৎ সংকট সরকারের জন্য একটি বার্তা উল্লেখ করে ঢাবির অর্থনীতি বিভাগের এই চেয়ারম্যান বলেন, আমাদের ভাগ্য ভালো আমরা এখনও শ্রীলঙ্কার মতো হইনি। এখনও আমরা ডলার উপার্জন করতে পারছি, আমাদের পোশাকশিল্পে রপ্তানি কিছুটা বেড়েছে। বিদেশ থেকে আসছে রেমিট্যান্স। যদিও আমাদের রিজার্ভ ৪২ বিলিয়ন ডলার থেকে ৩২ বিলিয়ন ডলারে নেমে এসেছে। আমাদের যে রিজার্ভ আছে তা দিয়ে চার মাস আমদানি করতে পারবো। এ জন্য আমাদের সাবধান হতে হবে। ডলার রক্ষা করতে হবে।

বাসদ নেতা জুলফিকার আলির সভাপতিত্বে সমাবেশে বক্তব্য রাখেন আসাদুজ্জামান মাসুম, নাইমা খালেদ মনিকা, বাচ্চু ভূঁইয়া, আব্দুস সাত্তার, কমরেড মাইনুদ্দিন, বেলাল চৌধুরী, কমরেড শামসুল আলম,মাসুদ খান ও বজলুর রশিদ প্রমুখ।

সরকারের ভুল নীতি ও দুর্নীতির কারণে দেশে জ্বালানি সংকট দেখা দিয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) অর্থনীতি বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. এম এম আকাশ।

বৃহস্পতিবার (২১ জুলাই) জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে তেল গ্যাস-খনিজ সম্পদ ও বিদ্যুৎ বন্দর রক্ষা জাতীয় কমিটির এক সমাবেশে এ মন্তব্য করেন তিনি।

অর্থনীতিবিদ এম এম আকাশ বলেন, সরকারের ভুল নীতি ও দুর্নীতির কারণে দেশে জ্বালানি সংকট এবং লোডশেডিং দেখা দিয়েছে। এর মধ্যে আবার আগামী চার মাসের মধ্যে শেষ হয়ে যাবে দেশের রিজার্ভ।

তিনি আরও বলেন, গ্যাসের ওপর স্বনির্ভরতার কথা আমরা আগে থেকেই বলে আসছিলাম। কিন্তু তা না করে আমদানি নীতি নেওয়া হলো। তখন আমরা বলছিলাম আমরা ফাঁদে পড়তে যাচ্ছি। এখন আমরা গ্যাসও আনতে পারছি না, বিদ্যুৎও পাচ্ছি না।

বিদ্যুৎ সংকট সরকারের জন্য একটি বার্তা উল্লেখ করে ঢাবির অর্থনীতি বিভাগের এই চেয়ারম্যান বলেন, আমাদের ভাগ্য ভালো আমরা এখনও শ্রীলঙ্কার মতো হইনি। এখনও আমরা ডলার উপার্জন করতে পারছি, আমাদের পোশাকশিল্পে রপ্তানি কিছুটা বেড়েছে। বিদেশ থেকে আসছে রেমিট্যান্স। যদিও আমাদের রিজার্ভ ৪২ বিলিয়ন ডলার থেকে ৩২ বিলিয়ন ডলারে নেমে এসেছে। আমাদের যে রিজার্ভ আছে তা দিয়ে চার মাস আমদানি করতে পারবো। এ জন্য আমাদের সাবধান হতে হবে। ডলার রক্ষা করতে হবে।

বাসদ নেতা জুলফিকার আলির সভাপতিত্বে সমাবেশে বক্তব্য রাখেন আসাদুজ্জামান মাসুম, নাইমা খালেদ মনিকা, বাচ্চু ভূঁইয়া, আব্দুস সাত্তার, কমরেড মাইনুদ্দিন, বেলাল চৌধুরী, কমরেড শামসুল আলম,মাসুদ খান ও বজলুর রশিদ প্রমুখ।

Related posts

যৌতুকের জন্য স্ত্রীকে হত্যা, আরেক বিয়ে করে পালিয়ে ছিলেন ১৬ বছর

Asha Mony

জ্বালানির মূল্যবৃদ্ধি সরকার এত সাহস করলো কীভাবে, প্রশ্ন ড. ইজাজের

Asha Mony

ঢাকা-গাজীপুর বিআরটি ১০ বছরেও শেষ হলো না কাজ, মেয়াদ বাড়ছে আরও এক বছর

Asha Mony