19 C
Dhaka,BD
January 29, 2023
Uttorbongo
নীলফামারী রংপুর

অর্থআত্মসাৎ: ডোমার পৌর মেয়রের বিরুদ্ধে দুদকের মামলা

নীলফামারীর ডোমার পৌর মেয়র মনছুরুল ইসলামসহ অগ্রণী ব্যাংকের সাবেক দুই কর্মকর্তার বিরুদ্ধে অর্থআত্মসাতের অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় তাদের বিরুদ্ধে মামলা করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)।

অভিযোগ উঠেছে মেয়র মনছুরুল চট্টগ্রাম বন্দর কর্তৃপক্ষের পোর্ট ড্যামারেজ বাবদ ২৭ কোটি এবং শুল্ককর বাবদ ৪ কোটি ১০ লাখ টাকাসহ মোট ৩১ কোটি ১০ লাখ টাকা ও অগ্রণী ব্যাংক নীলফামারী শাখার সাবেক ব্যবস্থাপক রথীন্দ্র নাথ ও ডোমার শাখার সাবেক ব্যবস্থাপক শফিকুল ইসলাম এবং মেয়র মনছুরুল ইসলাম যৌথভাবে ২৩ কোটি ৩৪ লাখ সরকারি টাকা আত্মসাৎ করেছেন।

মামলার বিবরণ থেকে জানা যায়, মেয়র মনছুরুল ইসলাম ‘শাওন অটো ব্রিকস লিমিটেড’র এর নামে ১৫ কোটি ৭৫ লাখ টাকা ঋণ নিয়েছিলেন। ঋণের মঞ্জুরিপত্রের শর্ত মোতাবেক ঋণের প্রথম কিস্তি বিতরণের পর ওই অর্থের ব্যবহার বিষয়ে নিশ্চিত হয়ে দ্বিতীয় কিস্তির অর্থ ছাড়ের নির্দেশনা ছিল। তবে অগ্রণী ব্যাংক নীলফামারী ও ডোমার শাখার সাবেক দুই শাখা ব্যবস্থাপক ঋণের মঞ্জুরিপত্রের শর্ত না মেনে মনছুরুল ইসলামের চাহিদা মোতাবেক মঞ্জুরিকৃত ঋণের পুরো টাকা বিতরণ করেন। এতে চলতি বছরের ৩১ জানুয়ারি পর্যন্ত ব্যাংকের সুদাসলে পাওনা ২৩ কোটি ৩৪ লাখ টাকা ক্ষতিসাধন হয়, যা সরকারি অর্থআত্মসাতের শামিল।

অপরদিকে, মেয়র মনছুরুল ইসলাম এলসির মাধ্যমে ২০১৬ সালের ২৩ জুন ও ১৩ আগস্ট মালামাল আমদানি করলেও চট্টগ্রাম বন্দর থেকে ওই মালামাল গ্রহণ না করায় চলতি বছরের ৩১ জানুয়ারি পর্যন্ত চট্টগ্রাম বন্দর কর্তৃপক্ষের পোর্ট ড্যামারেজ বাবদ ২৭ কোটি এবং শুল্ককর বাবদ ৪ কোটি ১০ লাখ টাকাসহ মোট ৩১ কোটি১০ লাখ টাকা পাওনা হয়। এই টাকা পরিশোধ না করে সরকারের আর্থিক ক্ষতিসাধন সরকারি অর্থআত্মসাতের শামিল, যা দণ্ডবিধির ৪০৯/৪২০/১০৯ ধারা এবং দুর্নীতি প্রতিরোধ আইনের ৫ (২) ধারায় শাস্তিযোগ্য অপরাধ।

এ বিষয়ে দুদক রংপুর কার্যালয়ের উপ-পরিচালক হোসাঈন শরীফ বলেন, মেয়র মনছুরুল ইসলাম চট্টগ্রাম বন্দর কর্তৃপক্ষের পোর্ট ড্যামারেজ বাবদ ২৭ কোটি এবং শুল্ককর বাবদ ৪ কোটি ১০ লাখ টাকাসহ মোট ৩১ কোটি১০ লাখ টাকা এবং অগ্রণী ব্যাংক নীলফামারী শাখার সাবেক ব্যবস্থাপক রথীন্দ্র নাথ ও ডোমার শাখার সাবেক ব্যবস্থাপক শফিকুল ইসলাম এবং মেয়র মনছুরুল ইসলাম যৌথভাবে ২৩ কোটি ৩৪ লাখ সরকারি টাকা আত্মসাৎ করেছেন। সবকিছু খতিয়ে দেখার পর দুদক আইনে তাদের বিরুদ্ধে মামলা করা হয়েছে।

মনছুরুল ইসলাম বর্তমানে নীলফামারীর ডোমার পৌরসভার মেয়র। তিনি তৃতীয়বারের মতো এই পৌরসভার মেয়রের দায়িত্ব পালন করছেন।

Related posts

সহকারী প্রকৌশলী নিহত , পিকআপ-মোটরসাইকেল সংঘর্ষে

admin

উত্তরাঞ্চলে চা শ্রমিকদের দৈনিক আয় ৪৫০-৭০০ টাকা

Asha Mony

সন্তানের পিতৃ পরিচয় দাবিতে অনশনে নারী

Asha Mony