27 C
Dhaka,BD
February 6, 2023
Uttorbongo
দিনাজপুর দেশজুড়ে রংপুর

তিন সন্তানের জন্ম ছয় বছর অপেক্ষার পর একসঙ্গে

দিনাজপুরে একসঙ্গে তিন সন্তানের জন্ম দিয়েছেন এক গৃহবধূ। বৃহস্পতিবার (৯ জুন) সকাল সাড়ে ৮টার দিকে এম আবদুর রহিম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে সিজারিয়ানের মাধ্যমে ওই নবজাতকদের জন্ম হয়।

সন্তানদের বাবা-মা বিরল উপজেলার মোতাপুকুর এলাকার শাহীন-শাবনূর দম্পতি।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, ২০১৬ সালে পারিবারিকভাবে শাহীন ও শাবনূরের বিয়ে হয়। শাহীন পেশায় একজন স্বর্ণকার। বিয়ের ছয় বছর পর একসঙ্গে তিন সন্তানের জন্মের খবরে পরিবারের সবাই খুশি।

শাহীন বলেন, বিয়ের পর থেকেই সন্তান নেওয়ার জন্য চেষ্টা করে আসছিলাম। বিয়ের ছয় বছরে ডাক্তার, কবিরাজ, ওঝা কেউ বাদ পড়েনি। যে যা বলেছে সেটাই করেছি স্বামী-স্ত্রী মিলে। কিন্তু কোনো কিছুতেই যেন কিছু হচ্ছিল না। হতাশায় সন্তানের আশাও ছেড়ে দিয়েছিলাম।

তিনি বলেন, গতবছর থেকে এম আবদুর রহিম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের গাইনি বিভাগের অধ্যাপক ফয়সাল আলমের কাছে চিকিৎসা নিই। অবশেষে সন্তান হলো। আমার স্ত্রী ও সন্তানেরা সুস্থ আছে।

নবজাতকদের বাবা আরও বলেন, প্রসববেদনা শুরু হলে আজ ভোর ৪টার দিকে শাবনূরকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। তিন সন্তানের মধ্যে দুজন ছেলে ও একজন মেয়ে। সত্যি আমরা খুব ভাগ্যবান। একসঙ্গে দুই ছেলে ও এক মেয়ে পেয়েছি।

শাবনূরের অস্ত্রোপচার করেন চিকিৎসক তাসনিম আয়েশা। তিনি বলেন, ৩৫ সপ্তাহের আগে সাধারণত অস্ত্রোপচার করা হয় না। কিন্তু প্রসূতির শারীরিক অবস্থা বিবেচনায় ৩৪ সপ্তাহে শাবনূরের অস্ত্রোপচার করা হয়েছে। তিন সন্তানের মধ্যে একজনের ওজন দুই কেজি, অপর দুজনের ওজন এক কেজি ৫০০ গ্রাম ও এক কেজি ২০০ গ্রাম। মা ও সন্তানেরা ভালো আছে। নবজাতকদের ইনকিউবেটরে রাখা হয়েছে।

শাবনূরের পাশে বসে আছেন নবজাতকদের নানি রমিছা বেগম। তিনি বলেন, একসঙ্গে তিন নাতি-নাতনি পেয়ে আমরা অনেক খুশি।

এদিকে, সন্ধ্যায় হাসাপাতালের শিশু ওয়ার্ডে গিয়ে দেখা যায়, নবজাতকদের ইনকিউবেটর থেকে বের করে আলাদা রাখা হয়েছে।

Related posts

পঞ্চগড়ে অনির্দিষ্টকালের জন্য পাথর-বালু কেনাবেচা বন্ধ

Asha Mony

ডায়রিয়ার চিকিৎসায় আঙুল কাটতে হলো শিশুর!

admin

নিখোঁজের পরদিন পুকুরে ভেসে উঠলো বৃদ্ধের মরদেহ

admin