19 C
Dhaka,BD
January 29, 2023
Uttorbongo
আন্তর্জাতিক

মা-বাবা ভিক্ষা করছেন সরকারি হাসপাতাল থেকে ছেলের লাশ ছাড়িয়ে নিতে

ছেলের খোঁজ পাচ্ছিলেন না জানিয়ে বাবা মহেশ ঠাকুর এএনআইকে বলেন, ‘কয়েক দিন আগে আমার ছেলে নিখোঁজ হয়। পরে ফোন করে জানানো হয়, আমার ছেলের লাশ সমষ্টিপুর সদর হাসপাতালে রয়েছে। ছেলের লাশ দিতে হাসপাতালের এক কর্মী ৫০ হাজার রুপি দাবি করেন। আমরা গরিব মানুষ। আমরা কীভাবে এত টাকা দেব?’

জানা গেছে, ওই হাসপাতালের অধিকাংশ কর্মীই চুক্তিভিত্তিক নিয়োগে কাজ করছেন। তাঁরা প্রায়ই ঠিক সময়ে বেতন পান না। রোগীর স্বজনদের কাছ থেকে হাসপাতাল কর্মীদের অর্থ নেওয়ার আরও অনেক ঘটনা আছে।

সর্বশেষ এ ঘটনায় কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে জানিয়েছে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। সমষ্টিপুর সিভিল সার্জন এস কে চৌধুরী বলেন, ‘দায়ী ব্যক্তিদের ছাড় দেওয়া হবে না। এমন ঘটনা মানবতার জন্য লজ্জার।’

কয়েক বছর আগে ওডিশা রাজ্যে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ অ্যাম্বুলেন্স দিতে রাজি না হওয়ায় এক আদিবাসী ব্যক্তি স্ত্রীর লাশ কাঁধে নিয়ে ১০ কিলোমিটার পর্যন্ত হাঁটেন। পরে এক টেলিভিশনকর্মী এ দৃশ্য দেখে ফেলেন। তাঁর চেষ্টায় ব্যবস্থা হয় অ্যাম্বুলেন্সের।

Related posts

পাঞ্জাবে ইমরান খানের দলের বড় জয়

Asha Mony

বৈশ্বিক সংকটের মুখে চাল রপ্তানি দ্বিগুণ করছে মিয়ানমার

Asha Mony

মামলার ওপরে ইমরান খান

Asha Mony